৩২.৩ ওভারে শেষ তৃতীয় দিনের খেলা

আলোর স্বল্পতায় খেলা বন্ধ হওয়ার পর খানিকটা বৃষ্টিও ঝরেছে মিরপুরে। পুরো আকাশ মেঘে ঢাকা থাকায় খেলা চালানোর মতো পর্যাপ্ত প্রাকৃতিক আলো মেলেনি। অবশ্য ফ্লাডলাইট জ্বলছিল বাংলাদেশ ইনিংসের শুরু থেকেই। বেশ কয়েকবার আলো মাপার মেশিন নিয়ে আম্পায়াররা মাঠে প্রবেশ করেন। কয়েকদফা পর্যবেক্ষনের পর বিকেল ৪টা ৯ মিনিটে তৃতীয় দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন। সারাদিন খেলা হয়েছে মোটে ৩২.৩ ওভার।

৮ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশের তৃতীয় দিন শেষে সংগ্রহ ২ উইকেটে ৩৮ রান। খেলা বন্ধ হওয়ার আগের বলে সাজঘরে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। বাংলাদেশ অধিনায়ক করেন ১৫ রান। তার আগে মাহমুদুল হাসান জয় ২ রান করে ফেরেন সাজঘরে।

জাকির হাসান ১৬ ও মুমিনুল হক ১ বল খেলে শুন্য রানে অপরাজিত আছেন। টিম সাউদি ও অ্যাজাজ প্যাটেল নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

গ্লেন ফিলিপসের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৮ রানের লিড নেয় নিউজিল্যান্ড। অল্পের জন্য সেঞ্চুরি ছুঁতে পারেননি কিউই ব্যাটার। ৭২ বলে ৮৭ রানের ইনিংস খেলে শরিফুল ইসলামের বলে আউট হন। ওই ওভারেই টিম সাউদি ফিরলে ১৮০ রানে গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড।

শুক্রবার টেস্টের তৃতীয় দিনে ৫ উইকেটে ৫৫ রান নিয়ে নেমে দুইশর কাছে গিয়ে থামে সফরকারী দল। কিউই লাইনআপে দিনের প্রথম আঘাতটি হানেন নাঈম হাসান। অফস্পিনারের ঝুলিয়ে দেয়া বলে এগিয়ে সোজা উড়িয়ে মারেন ড্যারেন মিচেল। লংঅন থেকে বাঁ-দিকে অনেকটা পথ দৌড়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে বল তালুবন্দি করেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

দুর্দান্ত ক্যাচে বাংলাদেশ পায় বেক থ্রু। ৯৫ রানে নিউজিল্যান্ড হারায় ষষ্ঠ উইকেট। আবার নাঈমের শিকার হয়ে মিচেল স্যান্টনার আউট হলে একশর আগেই সপ্তম উইকেট হারায় তারা।

তাতে লিডের সম্ভাবনা বাড়ে বাংলাদেশের। তবে ফিলিপসের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে সেটি সম্ভব হয়নি। ৯ চার, ৪ ছয়ে সেঞ্চুরির কাছে গিয়ে ক্যাচ আউট হন।

মিরাজ-তাইজুল তিনটি করে উইকেট নেন, নাঈম-শরিফুল নেন দুটি করে উইকেট। নিউজিল্যান্ড অলআউট হতেই দেয়া হয় চা-বিরতি। তৃতীয় ও শেষ সেশনের খেলা বিকেল সোয়া ৫টা পর্যন্ত।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ করে ১৭২ রান। অল্পরানেই লিডের আশায় দ্রুত উইকেট ফেলার চেষ্টা করে স্বাগতিক দল।

মিরপুরে বৃষ্টি থামার পর মাঠ শুকাতে খুব বেশি সময় লাগেনি। দুপুর ১২টায় শুরু হয় তৃতীয় দিনের খেলা। বৃষ্টিতে আগের দিনের তিনটি সেশন ও শুক্রবার দিনের প্রথম সেশনের খেলা হয়নি।

আগেরদিন ১ বলও মাঠে গড়াতে দেয়নি বেরসিক বৃষ্টি। রাতভর বৃষ্টির পর পুরোপুরি থামে সকাল ৯টার দিকে। এরপর মাঠ শুকিয়ে খেলা শুরু করতে লাগে ৩ ঘণ্টা।

মিরপুর টেস্টে দীর্ঘ সময় খেলা হয়েছে কেবল প্রথমদিন। তাও পুরোপুরি হয়নি। আলোর স্বল্পতায় ১৫ মিনিট আগেই শেষ হয় বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর দিনের খেলা। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মাঠ ছাড়েন হাসিমুখে, ৫৫ রানে নিউজিল্যান্ডের ৫ উইকেট তুলে নিয়ে।

স্বাগতিকদের ১৭২ রানের সংগ্রহটা খুব ছোট মনে হয়নি দিনশেষে। মিরপুর টেস্টে প্রথমদিনেই পড়ে ১৫ উইকেট। পুরো সময় খেলা হলে সেটি আরও বাড়তে পারত। কিউইরা ১১৭ রানে পিছিয়ে থাকে, হাতে থাকে ৫ উইকেট। সেখান থেকে ফিলিপসের ঝড়ো ইনিংসে লিড নিয়েই মাঠ ছাড়ে কিউইরা।

Scroll to Top