হারের হ্যাটট্রিকে শুরু, টানা ১১ ম্যাচ জিতে ‘চ্যাম্পিয়ন’

Bkash July

টানা তিন ম্যাচ হেরে বিপিএল শুরু করেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। সাত দলের আসরে সেরা চারের প্লে-অফ খেলতে পারবে কিনা দলটি সেটি নিয়েই জেগেছিল শঙ্কা। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার পর শুরু ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু। পরে শুধুই অপ্রতিরোধ্য পথে এগিয়ে যাওয়া। একের পর এক জয়।

Reneta June

চতুর্থ ম্যাচে এলো টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম জয়। আর হারতে হয়নি। কুমিল্লার খেলোয়াড়রা অদম্য মানসিকতা দেখিয়ে শিরোপার মুকুট মাথায় তুললেন। নিজেদের ঘরে জমা হলো আরেকটি ট্রফি।

সিলেট স্ট্রাইকার্সকে ৭ উইকেটে হারিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থবার শিরোপা জিতল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে নবম আসরের ফাইনালে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা সিলেটের ১৭৬ রান তাড়া করে ৪ বল হাতে রেখে।

ফাইনালে সিলেটের হারে টানা পঞ্চম শিরোপা জয়ের সুযোগ হাতছাড়া হলো অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার। অন্যদিকে ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বেই কুমিল্লা পেল তৃতীয় শিরোপা। মাশরাফীর অধিনায়কত্বে ২০১৫ সালে প্রথম শিরোপা জিতেছিল দলটি। সবশেষ সাত আসরে অংশ নেয়া কুমিল্লার এটি চতুর্থ শিরোপা। ২০২২ সালেও তারাই জেতে ট্রফি।

বিপিএলে অদম্য কুমিল্লা প্রতিবারই বড় বড় বিদেশি তারকাদের নিয়ে দল গড়ে। বিশ্বজুড়ে আরও কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট চলায় এবার ভালোমানের বিদেশি খেলোয়াড় পাওয়া যাচ্ছিল না। তার মাঝেই কুমিল্লা প্লে-অফ রাউন্ডে নিয়ে আসে সুনিল নারিন, মঈন আলী, আন্দ্রে রাসেলের মতো খেলোয়াড়দের। যার সুফল পেয়েছে দলটি।

বিপিএলে অদম্য কুমিল্লা প্রতিবারই বড় বড় বিদেশি তারকাদের নিয়ে দল গড়ে। বিশ্বজুড়ে আরও কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট চলায় এবার ভালোমানের বিদেশি খেলোয়াড় পাওয়া যাচ্ছিল না। তার মাঝেই কুমিল্লা প্লে-অফ রাউন্ডে নিয়ে আসে সুনিল নারিন, মঈন আলী, আন্দ্রে রাসেল, জনসন চার্লসদের মতো খেলোয়াড়দের। যার সুফল পেয়েছে দলটি। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর দলটির চেয়ারপারসন নাফিসা কামাল গর্ব করেই বলছিলেন, খেলোয়াড়দের পেছনে অর্থ ব্যয় করতে অনেক দলই কার্পণ্য করে। কিন্তু তার দল কখনোই এটি  করে না। এক্ষেত্রে তারা অন্যদের চেয়ে আলাদা।

BSH

Scroll to Top