স্থানীয় সরকার নির্বাচনেও আগ্রহ হারিয়েছে ভোটাররা

কালীগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হিসাব নিয়ে গড় মিল তথ্য উঠে এসেছে বেসরকারি ফলাফল শিটে।

কোনো ফলাফল শিটে ২১.১৬ শতাংশ, কোনো শিটে ২১.১৩ শতাংশ আবার কোনো ফলাফল শিটে ২১ শতাংশ ও ২১.১১ শতাংশ ভোটার উপস্থিত হয়েছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ মে) ওই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হয়। কালীগঞ্জের ইউএনও ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা জহির ইমামের স্বাক্ষরিত ফলাফল শিটে উপস্থিতির হিসাবের এ গড়মিল তথ্য উঠে আসে।

ওই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন।

চেয়ারম্যান পদের ফলাফল শিটে দেখানো হয়, মোট প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৪৫ হাজার ২শ ৭৮টি, যা মোট ভোটের ২১.১৬ শতাংশ। প্রথমে ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবির হোসেন চৌধুরীকে বিজয়ী করে এক ফলাফল শিটে দেখানো হয়, মোট প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৪৪ হাজার ৬শ ৬৬টি, যা মোট ভোটের ২১ শতাংশ।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হিসাব নিয়ে গড় মিল, ছবি- বার্তা২৪.কম


পরে দেবদাস কুমার রায়কে বিজয়ী করে অপর এক ফলাফল শিটে দেখানো হয়, মোট প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৪৫ হাজার ২শ ৮টি, যা মোট ভোটের ২১.১৩ শতাংশ।

নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে শিউলী রানী রায়কে বিজয়ী করে ফলাফল শিটে দেখানো হয় মোট প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৪৫ হাজার ১শ ৭৩টি, যা মোট ভোটের ২১.১১ শতাংশ।

বুধবার (২২ মে) এ বিষয়ে জানতে কালীগঞ্জের ইউএনও ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা জহির ইমামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয় থেকে একটি টিম এসেছে, আমি তাদের সঙ্গে আছি। নির্বাচন কর্মকর্তা এ বিষয়ে ভালো বলতে পারবেন।

পরে এ বিষয়ে জানতে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা লুৎফর রহমানকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, কেন্দ্র থেকে যেভাবে ফলাফল শিট এসেছে, সেই আলোকে গোটা উপজেলার ফলাফল শিট তৈরি করা হয়েছে।

Scroll to Top