সম্মিলিত চলচিত্র পরিষদের আপত্তিতে মুক্তি পাচ্ছে না ‘ফাইটার’

আহমেদ জামান শিমুল

ভারতে সঙ্গে বাংলাদেশেও মুক্তির কথা ছিল বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) ফাইটার। আমদানিকারক অনন্য মামুন সকল প্রস্তুতি গুছিয়ে এনেছিলেন। কিন্তু চলচ্চিত্রের ১৯ সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের এক চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন মামুন।

সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের সদস্য সচিব শাহ্‌ আলম কিরণ স্বাক্ষরিত এক চিঠি পাঠানো হয় ‘ফাইটার’ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার অনন্য মামুনকে। ২৪ জানুয়ারি পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, ‘আপনার আবেদনের প্রেক্ষিতে ভারতীয় হিন্দি ছবি ‘ফাইটার’ আমদানি করে আগামী ১ থেকে২৮ ফেব্রুয়ারি (ভাষার মাসে) প্রদর্শন করে, তার পূর্বে এবং পরে মুক্তি দানের অঙ্গীকার একটি অঙ্গীকারনামা আমাদের সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের অনুকূলে জমা দেওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।’

২৪ জানুয়ারি তিনি সেন্সর বোর্ড থেকে কাস্টমস ছাড়পত্রের চিঠি পান মামুন। একইদিন ছবিটির ভারতীয় রফতানিকারক ওয়ান ওয়ার্ল্ড মুভিজ বরাবর প্রিমিয়ার ব্যাংকের মাধ্যমে সাড়ে ৪ হাজার মার্কিন ডলারের এলসি খুলেন।

মামুন বলেন, ‘সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের চিঠিটি দুঃখজনক। আমরা তথ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি, এলসি খোলার পর তাদের এ চিঠি পেলাম। অথচ হিন্দি ছবি আমদানি নিয়ে যখন গেল বছর সিদ্ধান্ত সম্মলিত চলচ্চিত্র পরিষদই বলেছিল─দুই ঈদ ও উৎসবের সময় ব্যতীত অন্য সময় হিন্দি ছবি মুক্তি দেওয়া যাবে। এখন ওনারাই নিজেদের সিদ্ধান্ত মানছেন না।’

‘এভাবেই এক সময় দেশে যৌথ প্রযোজনার ছবি বন্ধ করা হয়েছে। এখন হিন্দি ছবি বন্ধ করা হচ্ছে। কারণ ওনাদের কথা অনুযায়ী ছবি মুক্তি দিলে আমাদেরকে ছবি চালাতে হবে মাত্র ৬ দিন। এরপর এক মাসের গ্যাপে মার্চ মাসে রোজা। আর ৩০০ কোটি টাকা দিয়ে ভারতীয় যে প্রযোজক আমাদের ছবি দিচ্ছেন উনি মাত্র ৪-৫ হাজার ডলারে ছবি দিচ্ছেন শুধুমাত্র মার্কেট তৈরির জন্য। ভবিষ্যতে হয়ত ১ লাখ ডলার বা ১ কোটি ডলার চেয়ে বসবে। সেখানে কেনো ৬ দিনের জন্য কেনো ছবি দিবে?’,─ বলেন মামুন।

সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদ আপত্তি না জানালেও এখন কেন জানাচ্ছে? এমন প্রশ্নে সদস্য সচিব শাহ্‌ আলম কিরণ বলেন, ‘এটা ঠিক আমরা ১৯ সংগঠন মিলে আগের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। কিন্তু এখন আমাদের সকল সংগঠনের সদস্যের মনে হয়েছে মহান ভাষার মাসের হিন্দি ছবির মুক্তির অনুমতি দেওয়া অনুচিত হবে। সব সদস্যের সম্মিলিত সিদ্ধান্তই আমরা মামুনকে জানিয়েছি।’

‘ফাইটার’ নির্মাণ করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। এতে অভিনয় করেছেন হৃতিক রোশন, দীপিকা পাড়ুকোন, অনিল কাপুর, আশুতোষ রানা প্রমুখ।

সারাবাংলা/এজেডএস

Scroll to Top