বাংলাদেশি দর্শকরা অ্যানিমেল দেখবেন ২৬ মিনিট কম

আহমেদ জামান শিমুল

ভারতীয় সেন্সর বোর্ড থেকে রণবীর কাপুর অভিনীত ‘অ্যানিমেল’ ছবিটি ‘এ’ ক্যাটাগরির সার্টিফিকেট পেয়েছিল। এতে অতিরিক্ত পরিমাণে নৃশংস দৃশ্য ও যৌনতা থাকায় এমন সার্টিফিকেট দিয়েছে বোর্ড। ছবিটি বাংলাদেশে আমদানি করছে কিবরিয়া ফিল্মস। তারা গেল ২৩ নভেম্বর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে ছবিটি আমদানির অনুমতি পায়। তবে বেশ কিছু জটিলতার কারণে সেন্সর বোর্ডে রোববার (৩ ডিসেম্বর) বিকেল নাগাদ তারা ছবিটি জমা দিয়েছে। জানা গিয়েছে, বাংলাদেশে্র দর্শকরা আন্তর্জাতিক ভার্সনের চেয়ে ২৬ মিনিট কম দেখতে পাবে ছবিটির।

‘অ্যানিমেল’ ভারতীয় সেন্সর বোর্ডের তথ্য অনুযায়ীয় রান টাইম ৩ ঘণ্টা ২১ মিনিট ২৩ সেকেন্ড। অন্য দিকে বাংলাদেশে সেন্সরে জমা দেওয়া কপিতে রান টাইম ২ ঘণ্টা ৫৫ মিনিটের মত। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান কিবরিয়া ফিল্মসের কর্ণধার গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু।

তিনি সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের সেন্সর আইন ও সিনেমার হলের কথা বিবেচনায় নিয়ে আলাদা ভার্সন মুক্তি দিচ্ছি। সেন্সর বোর্ডে আজকে (রোববার) জমা পড়লো। আশা করছি কালকে শো হবে।’

তাহলে কি আপনারা কালকেই মুক্তি দিবেন? ‘না, না। এত তাড়াহুড়া নেই। আমরা সেন্সর সার্টিফিকেট হাতে ফেলে আগামী শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) মুক্তি দিতে চাই ছবিটি,─’বলেন লিপু।

সাফটা চুক্তির আওতায় ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে। ‘অ্যানিমেল’-এর বিপরীতে বাংলাদেশ থেকে যাচ্ছে ওয়ালিদ আহমেদ পরিচালিত ‘মেঘের কপাট’।

‘অ্যানিমেল’-এর ট্রেলারে চমক দেখিয়েছেন রণবীর কাপুর। নায়ক রণবীরের হিংস্র চেহারার অ্যাকশন লুকে মুগ্ধ ভক্ত ও সমালোচকরা। সেই সঙ্গে অনিল কাপুর ও ববি দেওলকে নিয়েও নেটিজেনদের আগ্রহ তুমুল। সবকিছু বিবেচনায় সিনেবিশ্লেষকদের ধারণা, ‘ব্রহ্মাস্ত্র’র পর আরও একটি ব্লকবাস্টার দিতে চলেছেন তিনি। ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পেয়েছে ১ ডিসেম্বর।

‘অ্যানিমেল’ ছবিটিতে রণবীর এবং অনিল কাপুরকে পিতা-পুত্রের চরিত্রে দেখা যাবে, এবং পর্দায় তাদের মধ্যকার জটিল পিতা-পুত্রের সম্পর্ককে তুলে ধরা হবে। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় রয়েছেন রাশমিকা মান্দানা ও খল চরিত্রে ববি দেওল। হিন্দির পাশাপাশি তামিল, তেলুগু, কন্নড় ও মালায়ালাম ভাষায় মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। মুক্তির প্রথম দিনেই ছবিটি বিশ্বব্যাপী আয় করেছে ১১৬ কোটি রুপী।

উল্লেখ্য, হল মালিকদের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে সরকার গেল এপ্রিলে আগামী দুবছরের জন্য ১৮টি হিন্দি ছবি আমদানির অনুমতি দেয়। ছবিগুলো আসবে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যকার পণ্য আমদানি-রফতানি চুক্তি ‘সাফটা’র আওতায়। এর আওতায় ইতোমধ্যে মুক্তি পেয়েছে ‘পাঠান’, ‘জাওয়ান’, ‘কিসি কি ভাই কিসি কা জান’।

সারাবাংলা/এজেডএস

Scroll to Top