‘ফেরেশতে’র হ্যাট্রিক!

একের পর এক সুখবর দিয়েই চলেছে ‘ফেরেশতে’। ছবিটি সদ্য শেষ হওয়া ‘২২তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে’ উদ্ভোধনী ছবি হিসেবে প্রদর্শিত হয়েছিল। এর আগে ভারতের গোয়া চলচ্চিত্র উৎসবের ৫৪তম আসরে দ্যুতি ছড়িয়েছিল। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল ইরানের ফজর থিয়েটার চলচ্চিত্র উৎসব। বলা যায়, জয়া আহসান ও সুমন ফারুক অভিনীত ছবিটি হ্যাটট্রিক করলো।

১ ফেব্রুয়ারি ফজর থিয়েটার উৎসবের ৪২তম আসরের উদ্ভোধনী ছবি হিসেবে দেখানো হয়েছে ‘ফেরেশতে’। উৎসবের মূল ক্যাটাগরিতে সি মোর্গ ব্লুরিন পুরস্কারের প্রত্যাশায় ইরানের বিখ্যাত চলচ্চিত্রকারদের সঙ্গে লড়ছে ছবিটি।

ইরান-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবিটি পরিচালনা করেছেন মুর্তজা অতাশ জমজম। এতে জয়া-সুমন ফারুক ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন রিকিতা নন্দিনী শিমু, শহীদুজ্জামান সেলিম, শাহেদ আলীসহ প্রমুখ। এর কাহিনি লিখেছেন মুমিত আল রশিদ ও মুর্তজা অতাশ জমজম।

মানবিক মূল্যবোধ ও অনুভূতির মিশেলে তৈরি হয়েছে ‘ফেরেশতে’। বাংলাদেশের সমাজ-সংস্কৃতি ও রীতিনীতির সৌন্দর্য খুব চমৎকারভাবে তুলে ধরেছেন নির্মাতা, যা বিশ্ব দরবারে চলচ্চিত্রবোদ্ধা ও দর্শকদেরও ভীষণভাবে মুগ্ধ করবে বলে গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন ছবিটির অন্যতম অভিনেত্রী জয়া আহসান।

এবার অসংখ্য নামিদামি চলচ্চিত্রকার তাদের চলচ্চিত্র নিয়ে মূল ক্যাটাগরিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে জানা গেছে। সিনেমাটি নিয়ে জয়া আহসান বলেছেন, ‘কাজটা ভীষণ চ্যালেঞ্জিং ছিল। পরিচালকসহ পুরো টিম ওদের দেশের ভাষায় কথা বলেছে। তবে চলচ্চিত্রের তো ভাষা নেই। সে কারণে আমরা সবাই অদ্ভুতভাবে সংযোগ করতে পেরেছি ওদের টিমের সঙ্গে।’

সিনেমাটিতে নিজের চরিত্র নিয়েও কথা বলেছেন দর্শক নন্দিত এই অভিনেত্রী। জানিয়েছেন, আমাদের দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষগুলোর মধ্যে যে সংগ্রামী ও সাহসী চরিত্র রয়েছে, আমাদের চারপাশে দেখা এমনই একটি চরিত্রে দেখা যাবে তাকে।

এদিকে জয়ার অন্যতম সহশিল্পী সুমন ফারুক জানিয়েছেন, ক্যারিয়ার শুরু হয়েছে খুব বেশি দিন নয়। কিন্তু শুরু থেকেই একটু বেছে বেছে কাজ করছি। আমার বিশ্বাস বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্র উৎসবের মতো ‘ফেরেশতে’ যখন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে তখন দর্শকদের হৃদয় জয় করবে একই সঙ্গে দর্শকরা এটি সাদরে গ্রহণও করবেন।’

The post ‘ফেরেশতে’র হ্যাট্রিক! appeared first on Sarabangla | Breaking News | Sports | Entertainment.

Scroll to Top